উন্নয়ন সংবাদ ৭ নভেম্বর, ২০২০ ০৬:৩০

ঠাকুরগাঁওয়ে করলা চাষে ঝুঁকছে কৃষকেরা

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঠাকুরগাঁওয়ে দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে করলা চাষ। অল্পসময় ও কম পুঁজিতে লাভ বেশি হবার কারনে করলা চাষে ঝুঁকেছেন স্থানীয় চাষিরা।

চলতি মৌসুমে এ উপজেলায় করলার বাম্পার ফলনের পাশাপাশি ভালো দাম পাচ্ছে চাষিরা। স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে এ করলা চলে যাচ্ছে ঢাকা, সিলেট, চট্টগ্রাম, বরিশালসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায়।

সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষ্ণ রায় জানান, চলতি মৌসুমে সদর উপজেলায় ২২০ হেক্টর জমিতে করলা চাষ হয়েছে। প্রতি হেক্টরে ফলন হয়েছে প্রায় ১৭ হাজার কেজি। করলা চাষিদেও প্রয়োজনীয় পরামর্শসহ সহায়তা প্রদান করছে উপজেলা কৃষি দপ্তর।

করলা চাষিরা জানান, সাধারণত বছরে দুইবার করলা চাষ করা যায়। আগস্ট থেকে অক্টোবর মাস পর্যন্ত একবার এবং অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত আরেকবার। রোপণের চল্লিশদিন থেকে পঞ্চাশদিনের মধ্যে তা বিক্রির জন্য উপযুক্ত হয়।

সদর উপজেলার রুহিয়ার পাইকারি সবজি ব্যবসায়ী মকবুল জানায়, পাইকারি হিসেবে প্রতিমণ করলা বিক্রি হচ্ছে দু’হাজার টাকায়। রুহিয়া বাংলা বাজারসহ বিভিন্ন বাজারে প্রতিকেজি করলা বিক্রি হচ্ছে ৪৫ থেকে ৫০ টাকায়।

কৃষক মেহেদী হাসান উল্লাহ জানান, পাঁচবছর যাবৎ করলা চাষ করে তিনি লাভবান হচ্ছেন। চলতি মৌসুমে ৩৩ শতাংশ জমিতে ১২ হাজার টাকা খরচ করে করলা চাষ করেছি এবং ফলন থেকে দুইলাখ থেকে আড়াইলাখ টাকা পাওয়ার আশা করছি।