সারাদেশ ১৫ নভেম্বর, ২০২০ ০৪:১২

‘১৬ ডিসেম্বরের আগেই চালু হবে চিলাহাটি-হলদিবাড়ির রেল চলাচল’

নীলফামারী প্রতিনিধি

রেলপথমন্ত্রী এডভোকেট নূরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, ভারতের হলদিবাড়ি থেকে বাংলাদেশের নীলফামারীর ডোমার চিলাহাটি পর্যন্ত রেল লাইন নির্মাণ কাজ শেষ। আগামী ১৬ ডিসেম্বর মধ্যে এই পথটি উম্মুক্ত করা হবে। আজ শনিবার দুপুরে নীলফামারী জেলার ডোমার উপজেলার চিলাহাটিতে ভারত-বাংলাদেশ রেল লাইন সংযোগ প্রকল্পের নির্মাণ কাজ পরিদর্শন শেষে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

প্রাথমিকভাবে মালবাহি ট্রেন চলাচলের জন্য উম্মুক্ত হলেও পরবর্তীতে ঢাকা থেকে ভারতের শিলিগুড়ি পর্যন্ত চিলাহাটি-হলদিবাড়ির পথটি ব্যবহারের পরিকল্পনার কথাও জানান তিনি।

মন্ত্রী আরো বলেন, ভারতীয় সরকারের সঙ্গে আলাপ আলোচনার মাধ্যমে আমরা আশা করছি আগামী ২৬ মার্চের মধ্যে অথবা কাছাকাছি কোন সময় যাত্রিবাহি আরেকটি ট্রেন চলাচল উম্মুক্ত করতে পারবো। বঙ্গবন্ধু সেতুর তিনশ মিটার উত্তরে যমুনা নদীর ওপর দেশের সবচেয়ে বড় রেল সেতু তৈরী করা হবে। ১৫ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে আগামী ২৯ নভেম্বর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সেটির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। সেটির নির্মান কাজ সমাপ্ত হবে ২০২৫ সালের আগস্ট মাসে। দেশের দ্বিতীয় ওই রেল সেতু হবে ডুয়েল গেজ ও ডাবল লাইন। যেটি দিয়ে একশ কিলোমিটার গতিতে ট্রেন চলাচল করবে। এটি বাস্তবায়িত হলে দেশের পূর্বাঞ্চলের সঙ্গে পশ্চিমাঞ্চলের যোগাযোগ আরও সহজ হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন নীলফামারী জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী, ৫৬ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্ণেল মামুনুল হক, পশ্চিমাঞ্চল রেলের বিভাগীয় ব্যবস্থাপক সহিদুল ইসলাম, ডোমার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিনা শবনম, বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন, রেললাইন নির্মাণ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক আব্দুর রহীমসহ আরও অনেকে।