সিটিজেন জার্নালিজম ২৮ জুলাই, ২০১৯ ০৬:২৮

প্লাস্টিক বর্জ্য দিলে মিলবে রেস্তোরাঁয় খাবার

প্লাস্টিকের ক্ষতির কথা কারোরই অজানা নেই। দিনে দিনে পৃথিবীকে ধ্বংসের দিকে নিয়ে যাচ্ছে প্লাস্টিক। এমনকি সমুদ্রের তলদেশেও এর উপস্থিতি হুমকির মুখে ফেলছে জীববৈচিত্রকে। প্লাস্টিকের ব্যবহার কমিয়ে আনতে সারা বিশ্বেই নানা রকম পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে প্রতিনিয়ত। তবে সম্প্রতি ভারতে প্লাস্টিক মুক্ত এলাকা গড়তে অভিনব এক পদ্ধতির ব্যবহার লক্ষ্য করা গেছে।

দেশটির ছত্রিশগড়ের অম্বিকাপুর মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্লাস্টিকের তৈরি জিনিসপত্রের বিনিময়ে খাবার দেওয়ার। ভারতীয় বিভিন্ন গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, অম্বিকাপুরকে প্লাস্টিক মুক্ত এলাকা হিসেবে গড়ে তুলতেই এমন উদ্যোগ নিয়েছে মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন। এজন্য পৌরসভার অর্থায়নে গড়ে তোলা হয়েছে গারবেজ ক্যাফে নামের একটি রেস্তোরাঁ। এই ক্যাফেতে এক কিলোগ্রাম পরিমাণ প্লাস্টিকের জিনিস দিলে এর বিনিময়ে পাওয়া যাবে একজনের খাবার। দুই কিলোগ্রামে মিলবে দুইজনের খাবার।

তবে সকালের নাস্তা গ্রহণের ক্ষেত্রে একটু ছাড় রয়েছে। এক্ষেত্রে আধা কিলোগ্রাম পরিমাণ প্লাস্টিকের জিনিস দিলেই মিলবে একজনের সকালের নাস্তা। মিউনিসিপ্যাল এর এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন দেশটির বিভিন্ন পরিবেশবাদী সংগঠন।

যারা কাগজ এবং নানান জিনিসপাতি কুড়িয়ে বেড়ায় তাদের জন্যই এই ব্যবস্থা রাখা হয়েছে বলে জানা গেছে গণমাধ্যম সূত্রে।

অম্বিকাপুর মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনের মেয়র অজয় টিরকে এ ব্যাপারে বলেছেন, "এর আগেও আমরা কঠিন বর্জ্যের ব্যাপারে এমন একটি কাজ হাতে নিয়েছিলাম। সেটি সফল হবার পরই আমরা এই উদ্যোগটি হাতে নিওয়েছি। আশাকরি এতে সবার সমর্থন এবং সহযোগিতা পাবো।"

তিনি আরও জানান, "আগামী দশদিনের মধ্যেই আমরা কাজটি পুরোদমে শুরু করতে পারবো। প্লাস্টিকের এই বর্জ্যগুলো সলিড লিকুইড রিসোর্সেস সেন্টারে জমা দিতে হবে। সেখান থেকে একটি কুপন দেয়া হবে। এই কুপনটি গারবেজ ক্যাফেতে দিলেই মিলবে খাবার।"

দুই লাখ মানুষের ছোট্ট শহর অম্বিকাপুর পুরো ভারতের পরিচ্ছন্ন শহরের তালিকায় দ্বিতীয়স্থানে ওঠে এসেছে কয়েকদিন আগে। কিছুদিন আগেও এই শহরটি ১৫তম অবস্থানে ছিল। সবাই আশা করছেন খুব শীঘ্রই এই শহরটি ভারতের মধ্যে সবচেয়ে পরিচ্ছন্ন শহরে রূপলাভ করবে।