আইন ও আদালত ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০৮:৩৬

স্বামী হত্যার দায়ে স্ত্রীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

ডেস্ক রিপোর্ট

সাতক্ষীরায় স্বামীকে হত্যা ঘটনায় দায়ের করা মামলায় মেহেরুনন্নেছা নামে এক গৃহবধূকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আজ রবিবার সাতক্ষীরার সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ শেখ মফিজুর রহমান এই রায় ঘোষণা করেন।

মামলার একমাত্র আসামি আশাশুনি উপজেলার সরাপপুর গ্রামের নিহত জাকির হোসেন ওরফে ছোট বাবুর স্ত্রী মেহেরুনন্নেছা। তাকে বিচারক যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং আরও ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। অনাদায়ে আরও দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়।

মামলা ও আদালত সূত্রে জানা যায়, সাতক্ষীরা আশাশুনি উপজেলার কল্যাণপুর গ্রামের আব্দুল জব্বার মোল্যার মেয়ের সাথে একই উপজেলার শরাফপুর গ্রামের জহির উদ্দিন সরদারের ছেলে জাকির হোসেন ওরফে ছোট বাবুর বিবাহ হয়। বিয়ের পর থেকে স্ত্রী মেহেরুনন্নেছার পরকীয়ার কারণে স্বামী জাকির হোসেনের সাথে বিরোধ চলছিল। বিরোধের একপর্যায়ে ২০১৪ সালের ৩ অক্টোবর মেহেরুনন্নেছা তার স্বামী জাকির হোসেনকে কুড়াল দিয়ে স্বামীর বাড়িতেই কুপিয়ে হত্যা করে।

পরে পালিয়ে যাওয়ার সময় রক্তমাখা অবস্থায় গ্রামবাসী আটক তাকে আটক করে আশাশুনি থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। এ ঘটনায় নিহতের বড় ভাই আজহারুল সরদার বাদী মামলা করেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মনজিত কুমার দীর্ঘ তদন্ত শেষে ২০১৪ সালের ১৯ ডিসেম্বর আসামির বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট দাখিল করেন। মামলায় ২২ জন সাক্ষীরা মধ্যে রাষ্ট্রপক্ষ ১২ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করেন।

সরকার পক্ষে এ মামলা পরিচালনা করেন জেলা ও দায়রা জজ কোটের পিপি অ্যাডভোকেট আবদুল লতিফ। আসামি পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট আবু বকর সিদ্দিক।