কৃষি ৮ মার্চ, ২০২১ ০৭:০৫

লেবু চাষে আগ্রহী মাগুরার চাষিরা

ডেস্ক রিপোর্ট

দিন দিন লেবু চাষে ঝুঁকছে মাগুরার চাষিরা। খরচ কম ও উৎপাদন বেশী হওয়ায় লাভও বেশী হচ্ছে। ফলে বাড়ছে এই ফলের চাষ। চলতি মৌসুমে বৃষ্টিপাত ভালো হওয়ার কারণে লেবুর ফলন ভালো হয়েছে। লেবুর দাম ভালো থাকায় কৃষকরা বেজায় খুশি।

দেশে-বিদেশে লেবুর চাহিদা বৃদ্ধি পাওয়ায় চাষে কৃষকদের আগ্রহ বেড়েছে ফলে লেবুর আবাদও বেড়ে চলেছে। এতে কর্মসংস্থানও সৃষ্টি হয়েছে অনেক মানুষের। সুস্বাদু হওয়ায় এ অঞ্চলের লেবুর চাহিদাও দেশ-বিদেশের বাজারে বেড়েছে কয়েকগুণ।

লেবু চাষি ওলিয়ার জানায়, লেবু সাধারণত ৫ জাতের হয়ে থাকে। এগুলো হচ্ছে কাগজি লেবু, পাতি লেবু, এলাচি লেবু, বাতাবি লেবু ও নতুন জাতের হাইব্রিড সিডলেস নামে একটি লেবু চাষও বর্তমানে হচ্ছে। কাগজি লেবু ছোট আকৃতির হয় আর এর চাহিদা সর্বাধিক।

লেবু চাষি হরে কৃষ্ণ বলেন, প্রতিদিন প্রচুর লেবু বিক্রি হচ্ছে। বর্তমানে প্রতিটি লেবু ৫ টাকা থেকে ১০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। মাগুরায় উৎপাদিত লেবু ঢাকার কারওয়ান বাজারসহ দেশের বিভিন্ন বড় বড় বাজারে সরবরাহ করে থাকেন ব্যবসায়ীরা। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে পাইকাররা মাগুরা এসে লেবু সংগ্রহ করেন বলেও জানান এ চাষি।

মাগুরা পাইকারি বাজারের ব্যবসায়ী রনি বিশ্বাস বলেন, মাগুরার কাগজি লেবু শুধু দেশেই নয়, বিদেশেও রফতানি হচ্ছে। যাচ্ছে ইউরোপ, আমেরিকাসহ মধ্যপ্রাচ্যেও। কাগজি লেবু বিক্রি করে চাষি ও বিক্রেতারা প্রতিবছর লাখ লাখ টাকা আয় করছেন বলেও জানান তিনি।

মাগুরা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক সুশান্ত কুমার প্রামাণিক বলেন, কৃষি বিভাগের পক্ষ থেকে লেবু চাষিদের সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করা হচ্ছে। লেবু চাষের কলাকৌশল সম্পর্কে চাষিদের হাতেকলমে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। এ ছাড়া লেবুর চাষ বাড়ানোর লক্ষ্যে কৃষি বিভাগ তৃণমূল পর্যায়ে উদ্ধুদ্ধকরণের কাজ অব্যাহত রেখেছে বলেও জানান এ কৃষি কর্মকর্তা।