আইন ও আদালত ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১১:৪৬

৮টি চোরাই মোটরসাইকসহ সিন্ডিকেটের ৯ সদস্য গ্রেফতার

ডেস্ক রিপোর্ট।। 

ঢাকা মহানগরী ও চাঁদপুর জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে মোটরসাইকেল চোর চক্রের ৯ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা উত্তর বিভাগ।

গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা হলো- ১। জয়নাল হাওলাদার (৫৫), ২। মো. সুমন (৩৯), ৩। মো. রুবেল (২৯), ৪। মো. ওয়াজেদ আলী (৫৫), ৫। মো. রবিউল ওরফে রবু (৫৫), ৬। মো. আব্দুল খালেক ওরফে খালিদ (৪৮), ৭। মো. গোলাম মোস্তফা  সোহেল (৪২), ৮। শিমুল দেবনাথ (৩৫) এবং ৯। মো. নিজাম উদ্দিন (৩৫)।

গ্রেফতারের সময় তাদের নিকট হতে ও দেখানো মতে, একটি সিএনজি ও ৮টি মোটর সাইকেল উদ্ধার করে জব্দ করা হয়। উদ্ধারকৃত সিএনজি ও মোটরসাইকেল গুলো হলো-  একটি সি এন জি, যার রেজিঃ নং-ঢাকা-থ-১১-৪৫০৫ চেসিস নম্বর- MD2A44AZ9DWD34749 ইঞ্জিন-AFZWDD66704 , ০১টি পুরাতন ডিসকভার মোটরসাইকেল যাহা রেজিঃনম্বর বিহীন, চেসিস নম্বর-অস্পষ্ট, ইঞ্জিন নম্বর-JBUBTA59976, ০১ (এক) টি  পুরাতন  হিরো হোন্ডা মোটরসাইকেল চেসিস নম্বর-MBLHA10 EyB9G00053, ০১(এক) টি লাল রংয়ের পালসার মোটরসাইকেল চেসিস-MD2A11CZXDCF97242, ০১টি  ইয়ামাহা ফেজার মোটরসাইকেল চেসিস নম্বর- ME1RG444CH0017792 চেসিস নম্বর কিছুটা অস্পষ্ট, ০১টি লাল রংয়ের  ডিসকভার-১৫০ সিসি মোটরসাইকেল চেসিস-MD2A64CZ5FRK02156, ০১টি প্লাটিনা মোটরসাইকেল চেসিস নম্বর-MD2DDJKZZTWD91530, ০১টি লাল-কালো রংয়ের ডিসকভার মোটরসাইকেল চেসিস নম্বর-MD2A15AY4JWG94268 এবং ০১টি লাল-কালো রংয়ের পালসার মোটরসাইকেল চেসিস নম্বর-MD2A11CZ8CCC 19550 ও বাসার তালা ভাঙ্গার সরঞ্জাম উদ্ধার করে জব্দ করা হয়।


ডিবি সূত্রে জানা যায়, সংঘবদ্ধ মোটরসাইকেল চোর চক্রের সদস্যদের গ্রেফতার করতে গোয়েন্দা তথ্য ও প্রযুক্তির সহায়তা নিয়ে ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ঢাকা মহানগরী ও চাঁদপুর জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান করে ডিবি উত্তর বিভাগের গাড়ী চুরি প্রতিরোধ ও উদ্ধার টিম। প্রযুক্তির সহায়তায় ঢাকা মহানগরীর শেরে বাংলা নগর থানা এলাকা হতে মোটর সাইকেল চোর চক্রের সদস্য মোঃ জয়নাল হাওলাদার (৫৫) কে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তার হেফাজত হতে তালা ভাঙ্গার সরঞ্জাম ০২ (দুই) টি কলম আকৃতির লোহার দন্ড উদ্ধার করা হয়। এই লোহার সূচালো দন্ড দিয়ে যেকোন তালা তারা কৌশলে সহজে ভেঙ্গে ফেলতো। তার দেয়া তথ্য মতে কাফরূল থানা এলাকা হতে মোঃ রবিউল ওরফে রবু (৫৫) কে গ্রেফতার করে তার হেফাজত হতে উক্ত সিএনজি জব্দ করা হয়। পরবর্তী সময়ে তাদের দেওয়া তথ্যানুযায়ী চোর চক্রের অন্যান্য সদস্যদের রাজধানী ও চাঁদপুর থেকে চোরাই মোটরসাইকেলসহ গ্রেফতার করা হয়।


প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায়, বিগত দুই বছরে ঢাকা মহানগরীর বিভিন্ন এলাকায় রাতের বেলায় প্রায় ২০০ টি বাসার তালা ভেঙ্গে তারা মোটর সাইকেল চুরি করেছে।

মোটরসাইকেল চোর চক্রের সদস্যদের গ্রেফতারে সার্বিক পর্যালোচনায় দেখা যায়, আসামীদের মধ্যে একটি চক্র মাঠ পর্যায়ে রাতের বেলায় তাদের টার্গেট করা বাসা হতে তালা ভেঙ্গে  মোটর সাইকেল চুরি করে এবং পরবর্তী সময়ে চুরি করা সেই মোটর সাইকেল গুলো অন্য একটি চক্রের কাছে বিক্রি করে দেয়। তারা সংঘবদ্ধ মোটর সাইকেল চোর চক্র। তারা ঢাকা শহরের বিভিন্ন বাসা হতে তালা ভেঙ্গে মোটর সাইকেল চুরি করে দেশের বিভিন্ন এলাকায় বিক্রি করে।

তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে।