???? ? ??????? ২৩ জানুয়ারি, ২০২৩ ০৭:৫৩

স্বর্ণ নাকি রড, কী কিনবেন ?

তানজিলুর রহমান: শীতকাল এলেই একিসাথে বিয়ে ও নতুন ঘর বানানোর তোড়জোড়ের মৌসুম হিসেবে ধরা হয়।

বিয়ের অন্যতম অনুষঙ্গ যেমন স্বর্ণ তেমনি বাড়ি নির্মাণের অপরিহার্য উপকরণ রড। তবে এমন ভরা মৌসুমে স্বর্ণ আর রডের দাম আকাশচুম্বি। ইতিহাসের সর্বোচ্চ দামে বিক্রি হচ্ছে অন্যতম দুটি অনুষঙ্গ।

বর্তমানে এক ভরি সোনার দাম আর এক টন রডের দাম প্রায় একই দেশের বাজারে। ইতিহাসে প্রথমবারের মতো এক ভরি সোনার অলংকার এক টন রডের দাম ৯৩ হাজার টাকা ছাড়িয়েছে।

নতুন করে দাম বাড়ায় হলমার্ক করা ২২ ক্যারেটের এক ভরি সোনার অলংকার কিনতে লাগবে ৯৩ হাজার ৪২৯ টাকা। ছাড়া হলমার্ক করা ২১ ক্যারেট সোনার ভরি ৮৯ হাজার ১৭১ টাকা, ১৮ ক্যারেট ৭৬ হাজার ৪৫৮ টাকা সনাতন পদ্ধতির সোনার ভরির দাম হবে ৬৩ হাজার ৬৮৫ টাকা। এমনটাই জানিয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)

অন্যদিকে, এক টন ভালো মানের রডের দাম ছাড়িয়েছে ৯৪ হাজার টাকা। তবে বেশি বেড়েছে সাধারণ মানের রডের দাম, ৭৮-৭৯ হাজার টাকার রড বিক্রি হচ্ছে ৮৩-৮৪ হাজারে।

আবাসন ব্যবসায়ীদের সংগঠন রিহ্যাব বলছে, ২০২০ সালে এক টন রোড ছিল ৬৪ হাজার টাকা, ২০২১ সালে হাজার টাকা বেড়ে ৭০ হাজার টাকা হয়। গত বছর ২০২২ সালে কয়েক ধাপে ২৪ হাজার টাকা বেড়ে বর্তমানে সর্বোচ্চ ৯৪ হাজার টাকায় এসে পৌঁছে। দুই বছরের ব্যবধানে রডের দাম বেড়েছে প্রতি টনে ৩০ হাজার টাকা।

এ খাত সংশ্লিষ্টরা বলছেন, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের পরিপ্রেক্ষিতে সৃষ্ট বৈশ্বিক পরিস্থিতির কারণে রডের কাঁচামাল আমদানিতে সমস্যা হচ্ছে। এর পাশাপাশি গ্যাস-বিদ্যুৎ এবং ডলারের দাম বেড়েছে। এসব কারণে দাম বেড়েছে রডের। এদিকে, বিশ্ববাজারে সোনার দাম প্রতিদিনই বাড়ছে।

 

 

আমাদের কাগজ/টিআর