আইন ও আদালত ৫ আগস্ট, ২০১৯ ০৩:২১

রূপগঞ্জে পোশাক শ্রমিককে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ৫ 

ডেস্ক রিপোর্ট ।। 

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলায় এক নারী পোশাক শ্রমিক (১৮) গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন। গতকাল সকালে ভুক্তভোগী কিশোরী বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় পাঁচ যুবকের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেন। পরে সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত উপজেলা পিতলগঞ্জ পশ্চিমপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে পাঁচ যুবককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, উপজেলার পিতলগঞ্জ পশ্চিমপাড়া এলাকার গোলজার মিয়ার ছেলে রাসেল মিয়া (২১), একই এলাকার আহসান উল্লাহর ছেলে আশিক মিয়া (২০), সিরাজ মিয়ার ছেলে শাকিল মিয়া (২২), হারিন্দা টেকপাড়া এলাকার হযরত আলীর ছেলে সামছু দোহাই (২৭) ও নীলফামারী ডিমলা সুন্দরখাতা এলাকার আহাম্মদ আলীর ছেলে শের আলী (২০)।

মামলার বরাত দিয়ে রূপগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) এমদাদুল হক জানান, পিতলগঞ্জ এলাকার রাসেল মিয়া নামে এক যুবকের সঙ্গে রং নাম্বারে মোবাইলে কথা বলার মাধ্যমে পরিচয় হয় স্থানীয় পোশাক কারখানার শ্রমিক ওই কিশোরীর। প্রতিদিন কথা বলার এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। পরিবারের সঙ্গে ওই কিশোরীকে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার কথা বলে গত বৃহস্পতিবার (১ আগস্ট) রাসেল কিশোরীকে কাঞ্চন ব্রিজের নিচে আসতে বলেন। পরে রাত আটটায় কিশোরী ব্রিজের নিচে গেলে রাসেল তাকে পিতলগঞ্জ এলাকার একটি পরিত্যক্ত ঘরে নিয়ে যান। সেখানে প্রথমে মারধর করে এবং হত্যার ভয় দেখিয়ে রাসেল কিশোরীকে ধর্ষণ করেন। পরে রাসেলের সহযোগী একই এলাকার আশিক মিয়া, শাকিল মিয়া, সামছু দোহাই ও শের আলী পালাক্রমে ধর্ষণ করেন। পরদিন শুক্রবার রাতে পুনরায় পালাক্রমে ধর্ষণে কিশোরী অসুস্থ হয়ে পড়েন। রাতেই কিশোরীকে কাঞ্চন ব্রিজ এলাকায় রাস্তার পাশে ফেলে রেখে পালিয়ে যায় যুবকেরা। পরে কিশোরী স্থানীয়দের সহযোগিতায় প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে শনিবার সকালে থানায় মামলা দায়ের করেন।