আইন ও আদালত ২৬ অক্টোবর, ২০১৯ ০৪:৩৬

পারিশ্রমিক ছাড়াই লড়েছেন নুসরাতের আইনজীবী

ডেস্ক রিপোর্ট।। 

মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত হত্যা মামলায় তার পরিবারের পক্ষে বিনা খরচে আইনি লড়াই করেছেন আইনজীবী এম শাহজাহান সাজু।

আসামিরা প্রভাবশালী হওয়ায় অনেক প্রতিকূলতা সত্ত্বেও তিনি হার মানেননি।  ৮৭ জনের সাক্ষ্য গ্রহণে নিরলস কাজ করেছেন ফেনী জেলা জজ কোর্টের এই আইনজীবী।

বহুল আলোচিত নুসরাত হত্যা মামলার রায়ে প্রধান আসামি অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলাসহ ১৬ জনেরই ফাঁসির আদেশ দিয়েছে আদালত।

ঢাকা মেডিক্যালের বার্ন ইউনিটে মৃত্যু যন্ত্রণায় ছটফট করতে থাকা নুসরাতের আকুতি দেখে দেশের অনেকের মত কেঁদেছেন ফেনীর আইনজীবী এম শাহজাহান সাজুও।  তখনই তিনি সিদ্ধান্ত নেন এ মামলায় তিনি লড়বেন।  নেবেন না কোন পারিশ্রমিক।  

এম শাহজাহান সাজু বলেন, "টাকা-পয়সা না নেয়ার একটি কারণ হচ্ছে, মূলতঃ এই পরিবারটি অসহায় এবং নিঃস্ব।  আর টাকাপয়সা না থাকলে যে বিচার পাবে না, এমন ধারণা রয়েছে।  আমরা প্রমাণ করতে চাই যে, এক টাকা খরচ না করেও বিচার পাওয়া যায়।  এই মামলা তার উদাহরণ।"

তিন কন্যার বাবা আইনজীবী সাজু সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে স্বপ্রণোদিত হয়েই এ মামলার দায়িত্ব নিয়েছেন।  শিক্ষকের মাধ্যমে কোন সন্তান যেন যৌন হয়রানির শিকার হতে না হয়, এই উদাহরণ সৃষ্টি করতে চান।

"আমি চাই, স্কুল-কলেজে পড়তে গিয়ে কোনো মেয়ে সন্তান যাতে কোনো শিক্ষক দ্বারা আর লাঞ্ছিত না হয়, এবং কোনো শিক্ষক দ্বারা যৌন হয়রানির শিকার না হয়। সেজন্য একটা উদাহরণ সৃষ্টি করার জন্য আমি ব্যক্তিগতভাবে এই মামলার দায়িত্ব গ্রহণ করি।"

তিনি জানান, মামলা পরিচালনা করতে গিয়ে অনেক লাঞ্ছনা-বঞ্চনার শিকারও হতে হয়েছে তাকে।  শুনতে হয়েছে আসামিপক্ষের আইনজীবীদের অনেক তিরস্কারও।

"আসামিপক্ষের অনেক আইনজীবী আমাদেরকে তিরস্কার, আদালতে তিরস্কার এবং টিপ্পনী কেটেছে। সেই হিসেবে শত সমালোচনা, তিরস্কার, উস্কানিমূলক বক্তব্যের মধ্যেও ধৈর্য্যধারণ করে আমরা এই মামলায় সর্বাত্মকভাবে সহযোগিতা করেছি।"