উন্নয়ন সংবাদ ১৪ নভেম্বর, ২০১৯ ০২:২২

৯১ লাখ টাকা কর দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল

ডেস্ক রিপোর্ট ।।

করসেবা প্রদান ও কর সচেতনতা বাড়াতে আজ থেকে সারাদেশে সপ্তাহব্যাপী আয়কর মেলা শুরু হচ্ছে। অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল ঢাকায় মিন্টো রোডের অফিসার্স ক্লাব প্রাঙ্গণে মেলার উদ্বোধন করবেন।

রাজধানী ঢাকাসহ বিভাগীয় শহরে সপ্তাহব্যাপী মেলা চলবে ২০ নভেম্বর পর্যন্ত। এ ছাড়া সব জেলা শহরে চার দিন এবং ৪৮টি উপজেলায় দুই দিন মেলা হবে। পাশাপাশি উপজেলা পর্যায়ে ৮টি গ্রোথ সেন্টারে এক দিন ভ্রাম্যমাণ মেলা অনুষ্ঠিত হবে। বাসস

দুপুরে রাজধানীর বেইলি রোডে আয়কর মেলায় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে রিটার্ন জমা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, এনবিআর চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভুইয়া।

একান্ত ব্যক্তিগত তথ্য হওয়ায় প্রধানমন্ত্রীর দেয়া আয়করের পরিমাণ জানানো হয়নি। 

এ ছাড়া আয়কর মেলায় ৯১ লাখ টাকা কর দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। 

এছাড়া বড় করদাতা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে গ্রামীণ ফোন ১৫০ কোটি, ইসলামি ব্যাংক ১০০ কোটি টাকা আয়কর দিয়েছে।

এবারের মেলার শ্লোগান হচ্ছে ‘সবাই মিলে দেব কর, দেশ হবে স্বনির্ভর’ এবং প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে ‘কর প্রদানে স্বতঃস্ফ’র্ত অংশগ্রহণ, নিশ্চিত হোক রুপকল্প বাস্তবায়ন’।

এবারের মেলায় বরাবরের মত আয়কর বিবরণীর ফরম দাখিল থেকে শুরু করে কর পরিশোধের জন্য ব্যাংক বুথ পাবেন করদাতারা। তাদের জন্য মেলায় সহায়তাকেন্দ্রে অপেক্ষা করবেন কর কর্মকর্তারা। একই ছাদের নিচে সব সেবা মিলবে। করদাতা শুধু প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সঙ্গে আনলেই হবে।

মেলায় ই-টিআইএন নিবন্ধন ও আয়কর বিবরণী গ্রহণ,কর পরিশোধ,আয়কর বিবরণী পূরণে সহায়তা এবং কর শিক্ষা প্রদানের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা থাকছে।

গতকাল জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূইয়া সাংবাদিকদের জানান, এবারের মেলা উপলক্ষে কর সংক্রান্ত তথ্য সম্বলিত একটি ওয়েবসাইট এবং কর পরিশোধে মোবাইল ব্যাংকিং সেবা চালু করা হচ্ছে। ওয়েবসাইট থেকে আয়কর বিবরণী ফরম ও চালান ফরম ডাউনলোড করার পাশাপাশি সব ধরনের নির্দেশকা পাওয়া যাবে। তাই করমেলার ন্যায় অধিকাংশ সুবিধা ঘরে বসেই ভোগ করতে পারবেন করদাতারা।

এদিকে, আজ বিকেলে রাজধানীর হোটেল রেডিসন ব্লু ওয়াটার গার্ডেনে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জাতীয়ভাবে সেরা করদাতাগণকে ট্যাক্স কার্ড ও সম্মাননা প্রদান করা হবে।