আইন ও আদালত ২৩ নভেম্বর, ২০১৯ ০৮:৩৯

শেরপুরে জাল পে-অর্ডারে চাল কেনার চেষ্টায় আটক ৩

ডেস্ক রিপোর্ট ।।

শেরপুরে ব্যাংকের জাল পে-অর্ডার দিয়ে চাল কেনার চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। এ অভিযোগে তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। জব্দ করা হয়েছে ট্রাক ও জাল পে-অর্ডার।

পুলিশ ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, গত শুক্রবার রাতে জনৈক নজরুল ইসলাম আড়তদার উসমান আলীর কাছে মুঠোফোনে ১৭ মেট্রিক টন চাল কেনার আদেশ দেন। এ জন্য তিনি ট্রাক বন্দোবস্তকারী মোকছেদ আলীর মাধ্যমে ৮ লাখ ১০ হাজার টাকার একটি পে-অর্ডার পাঠান। চেকটি ছিল সোনালী ব্যাংকের ঢাকার কাকরাইল শাখা থেকে ইস্যুকৃত। 

আড়তদার উসমান আলী শহরের নওহাটা এলাকার তারেক রাইস মিল থেকে উক্ত চাল সরবরাহের ব্যবস্থা করেন। চেকটি আড়তদার উসমান আলীর কাছে সন্দেহ হলে এক ব্যাংক কর্মকর্তার মাধ্যমে তা যাচাই করেন। প্রাথমিকভাবে এটি জাল বলে প্রমাণিত হলে উসমান আলী সদর থানার পুলিশকে বিষয়টি জানান।

সংবাদ পেয়ে সদর থানার পুলিশ ট্রাক বন্দোবস্তকারী মোকছেদ আলী, ট্রাক চালক সুমন ও আবুল হাসেমকে গ্রেফতার করে। এ সময় এ ঘটনায় ব্যবহৃত ট্রাক ও জাল পে-অর্ডারটি জব্দ করা হয়।

এ ঘটনায় আজ শনিবার দুপুরে মেসার্স উসমান রাইস এজেন্সির মালিক মো. উসমান আলী বাদী হয়ে গ্রেফতারকৃতদের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাতনামা আরও ৩-৪ জনকে আসামি করে সদর থানায় মামলা করেন।

শেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, একটি চক্র জাল পে-অর্ডারের মাধ্যমে প্রতারণা করে চাল কেনার চেষ্টা করেছিল। পুলিশ চক্রের মূল হোতা নজরুল ইসলামকে গ্রেফতারের চেষ্টা করছে।

তবে থানা হেফাজতে আটক থাকাকালে গ্রেফতারকৃতরা এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ অস্বীকার করেন।