আইন ও আদালত ২৭ নভেম্বর, ২০১৯ ১০:১৮

হোলি আর্টিজান হামলা মামলার রায় আজ

সাড়ে ৩ বছর পর আলোচিত হোলি আর্টিজান মামলার রায় ঘোষণা হবে আজ।

গুলশানের হোলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় ভয়াবহ জঙ্গি হামলা মামলার প্রায় সাড়ে তিন বছর পর রায় ঘোষণা হচ্ছে আজ। রাষ্ট্রপক্ষ আশা করছে, কারাগারে থাকা আট জঙ্গির সবারই সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড হবে। আর আসামিপক্ষের আইনজীবীরা দাবি করছেন, আসামিদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণ করতে পারেনি রাষ্ট্রপক্ষ।

২০১৬ সালরে ১লা জুলাই রাতে গুলশানের হোলি আর্টিজানে হামলা চালিয়ে বিদেশি নাগরকিসহ ২০ জনকে নৃশংসভাবে হত্যা করে জঙ্গিরা। তাদের হামলায় দুই পুলিশ কর্মকর্তাও প্রাণ হারান। এ ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায় এক বছর বিচারিক কার্যক্রম শেষে ২৭শে নভম্বের রায় ঘোষণার দিন ঠিক করেন ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মজিবুর রহমান। মামলায় ২১১ জন সাক্ষীর মধ্যে ১১৩ জন সাক্ষ্য দেন।

মামলার সাক্ষ্য ও যুক্তি উপস্থাপনে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণে সক্ষম হয়েছেন বলে দাবি করেন রাষ্ট্রপক্ষ।

পাবলিক প্রসিকিউটর আবদুল্লাহ আবু বলেন, 'আসামিদের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য অভিন্ন এবং তারা সেখানে হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছে। বিধান অনুযায়ী আসামিদের প্রত্যেকের শাস্তি হবে মৃত্যুদণ্ড।'

অন্যদিকে আসামি পক্ষ আশা করছেন তারা ন্যায়বিচার পাবেন। আসামিপক্ষের আইনজীবী মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন বলেন, মামলায় যদি প্রমাণ না হয় তাহলে আসামি নির্দোষ প্রমাণিত হবে। যতক্ষণ না আসামিদের অপরাধ পুরোপুরি প্রমাণিত না হবে ততক্ষণ তারা নির্দোষ।

আলোচিত এ মামলায় আট আসামি হলেন জাহাঙ্গীর আলম ওরফে রাজীব গান্ধী, রাকিবুল হাসান রিগান, রাশেদুল ইসলাম, সোহলে মাহফুজ, মিজানুর রহমান ওরফে বড় মিজান, হাদিসুর রহমান সাগর, শরিফুল ইসলাম ও মামুনুর রশিদ। এছাড়া মামলায় অভিযুক্ত ১৩ জঙ্গি বিভিন্ন অভিযানে নিহত হওয়ায় তাদের মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।