মুক্তিযুদ্ধ ৩০ নভেম্বর, ২০১৯ ০৬:০৬

পাথরঘাটা হানাদারমুক্ত দিবস পালিত

ডেস্ক রিপোর্ট ।। 

নানা আয়োজনে ‘পাথরঘাটা হানাদার মুক্ত দিবস’ পালিত হয়েছে। এ দিবস উপলক্ষে শনিবার স্থানীয় বীর মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ, পাথরঘাটা প্রেস ক্লাব ও ‘আমরা মুক্তিযুদ্ধকে জানি’ যৌথ আয়োজনে বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হয়। ১৯৭১ সালের ২৭ নভেম্বর পাকিস্তনি হানাদারদের হাত থেকে পাথরঘাটার উপজেলাকে মুক্ত করেন বীর মুক্তিযোদ্ধারা।

কর্মসূচির শুরুতে সকাল ৯টায় পাথরঘাটা ঐতিহ্যবাহী খাসকাচারী মাঠ থেকে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শুরু করে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুনরায় খাসকাচারি মাঠে শেষ হয়। পরে খাসকাচারি মাঠে আলোচনা সভা ও স্মৃতিচারণ করেন বীর মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ।

এতে বক্তব্য রাখেন পাথরঘাটা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. হুমায়ুন কবির, বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এ খালেক, মোস্তাফিজুর রহমান, শহিদুল আলম তালুকদার, সাইদুল কবির ফারুক, হাবিবুর রহমান মৃধা, উপজেলা আ.লীগের সভাপতি আলমগীর হোসেন, সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. জাবির হোসেন, পাথরঘাটা প্রেস ক্লাবের সভাপতি মির্জা শহিদুল ইসলাম খালেদ, পৌর মেয়র আনোয়ার হোসেন আকন, শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারসহ উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী, সামাজিক সংগঠন অংশ নেন।

সভাপতিত্ব করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা কামাল উদ্দিন ও অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম খোকন। হানাদারমুক্ত দিবসের মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস সংরক্ষণ ও গবেষণার লক্ষ্যে ‘আমরা মুক্তিযুদ্ধকে জানি’ নামে একটি গবেষণা প্রতিষ্ঠানের আত্মপ্রকাশ ঘটে।

আলোচনাসভায় বক্তারা বলেন, ১৯৭১ সালের ২৭ নভেম্বর ভোররাতে মুক্তিকামী যোদ্ধারা পাকিস্তানিদের হাত থেকে পাথরঘাটাকে মুক্ত করার জন্য থানা ভবনে আক্রমণ করে। থানার অভ্যান্তর থেকে পুলিশ ও রাজাকার বাহিনী প্রচণ্ডভাবে তাদেরকে প্রতিহত করা হয় এবং গণআদালত বসিয়ে অনেক রাজাকারে প্রকাশ্যে শাস্তি প্রদান করা হয়। স্বাধীনতার পরে এই প্রথম পাথরঘাটা হানাদারমুক্ত দিবস পালিত হয়েছে। এই উদ্যোক্তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন উপস্থিত মুক্তিযোদ্ধাসহ অতিথিবৃন্দ।