বিনোদন ২ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১২:২৭

মিয়া খলিফা; যৌনতা ও নগ্নতাকেই যিনি ভেবেছিলেন আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর পথ

বিনোদন ডেস্ক।।

মার্কিন পর্নস্টার মিয়া খলিফার বয়স তখন সবেমাত্র ২১। মন দিয়ে স্নাতক পড়ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয়ে। নিজেকে গুটিয়ে রাখতেন ক্যাম্পাস জীবনে। হঠাৎ একদিন তার মনে হলো আত্ম-সম্মা্নবোধের ঘাটতি রয়েছে তার। পাচ্ছেন না আত্ম-বিশ্বাস।

সমাধানে ব্যায়াম করা শুরু করলেন মিয়া খলিফা। কমালেন ৫০ পাউন্ড ওজন। তাতেও মন ভরেনি। সার্জারি করিয়ে বড় করলে স্তনের আকার। তবু মনে হচ্ছিলো কোন উন্নতি হয়নি।

একদিন তাকে পর্ন অভিনয়ের প্রস্তাব দেন এক মার্কিন পরিচালক। বুঝে না বুঝে রাজি হয়ে যান মিয়া। ভেবেছিলেন এতে বাড়বে আত্ম-সম্মান বোধ, আত্ম-বিশ্বাসও।

মিয়া খলিফা বলেন, ‘প্রথমদিন পর্ন অভিনয় করার পর একই সঙ্গে লজ্জা ও অপরাধবোধ কাজ করছিলো। একই সঙ্গে মনে হচ্ছিলো আমি ঠিক করা করেছি। তখন আমি আসলে ২১ বছর বয়সী একটা গাধা ছিলাম।’

ইউটিউবে জনপ্রিয় পডকাস্ট ‘ফরওয়ার্ড’ এর উপস্থাপক ল্যান্স আর্মস্ট্রংকে এসব কথা জানিয়েছেন লেবানিজ বংশোদ্ভূত মার্কিন পর্নস্টার মিয়া খলিফা।

তিনি জানান, প্রথম দিন অভিনয়ের পর খুব বেশি বিচলিত হননি। ভেবেছিলেন কোম্পানির বাইরে কেউ তার পর্ন গুলো খুঁজে পাবে না। কিন্তু পরে হঠাৎ চারদিক থেকে ব্যাপক সাড়া পেয়ে ভড়কে যান।

মিয়া খলিফা জানান, তিনি এমনটা ভেবেছিলেন কারণ সে সময় পর্যন্ত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কোন অ্যাকাউন্টই ছিলো না তার।