আন্তর্জাতিক ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০২:৩১

চাঁদে পদার্পণ করছেন নারী

চাঁদে আবার মানুষ পাঠানোর প্রকল্প হাতে নিয়েছে আমেরিকান মহাকাশ গবেষণা সংস্থা। ২০২৪ সালকে সামনে রেখে দুই হাজার ৮০০ কোটি ডলারের (২৮ বিলিয়ন ডলার) এই প্রকল্পটির নামকরণ করা হয়েছে আর্টেমিস।

এই প্রকল্পে নাসা একজন পুরুষের সঙ্গে এক নারীও অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। ১৯৭২ সালে চাঁদের বুকে প্রথম মানুষ অবতরণ করলেও এই প্রকল্পের মাধ্যমে প্রথম কোনো নারীকে চাঁদে পাঠানোর পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

২০২৪ সাল পর্যন্ত লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে নাসা একটি পরিকল্পিত সময়সূচি প্রকাশ করেছে। তবে নাসা বলছে, নির্ধারিত সময়ে চাঁদের বুকে নামতে হলে কংগ্রেসকে ৩২০ কোটি ডলারের তহবিল তাদের হাতে সময়মতো তুলে দিতে হবে। 

নভোচারী গোষ্ঠীর মধ্যে থেকেই কোনো নারীকে এই মিশনের জন্য বেছে নেওয়া হবে। এ ব্যাপারে মি. ব্রাইডেনস্টাইন ২০১৯ সালের জুলাই মাসে সিএনএনকে বলেছিলেন, ২০২৪ সালে চাঁদের বুকে প্রথম পদচারণা করবেন যে নারী তিনি হবেন- ‘এমন একজন যার মহাকাশ ভ্রমণের অভিজ্ঞতা আছে’। অর্থাৎ যিনি ইতোমধ্যেই কোনো আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে গেছেন।

প্রকল্পটির জন্য এ পর্যন্ত ১৭ জন নারী নভোচারীকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। তবে আগামী চার বছরের মধ্যে চাঁদে অবতরণের জন্য যোগ্যতার মাপকাঠি আনুসারে একজনকে  নির্ধারণ করা হবে।