আইন ও আদালত ২২ আগস্ট, ২০১৯ ০৬:২৮

'স্বপ্ন' সুপার শপে পচা মাছ, অতঃপর

ছবিঃ সংগৃহিত

ছবিঃ সংগৃহিত

ডেস্ক রিপোর্ট।।

পচা মাছ সংরক্ষন ও বিক্রয়ের দায়ে নারায়ণগঞ্জ শহরের জামতলা এলাকায় অবস্থিত 'স্বপ্ন এক্সপ্রেস সুপার শপ'কে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সিনিয়র সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোসাম্মৎ রহিমা আক্তারের নেতৃত্বে থাকা ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সোমবার (১৯ আগস্ট) দুপুরে স্বপ্ন সুপার শপের এই নতুন শাখাটিতে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট  মোসাম্মৎ রহিমা আক্তারের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত এ অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযান পরিচালনার সময় ‘স্বপ্ন এক্সপ্রেস’ সুপার শপে বিপুল পরিমাণ পচা বাগদা চিংড়ি, ছোট চিংড়ি ও পুটি মাছ মজুদ পাওয়া যায়। এছাড়া নিষিদ্ধ প্লাস্টিক প্যাকেটজাত পণ্যও পাওয়া যায় ব্যাপক পরিমানে। পচা মাছ বিক্রয়ের অপরাধে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৪৫ ও ৫৩ ধারায় পনের হাজার টাকা এবং পাটজাত পণ্য ব্যবহার বাধ্যতামূলক আইন ২০১০, ৫৩ নং ও ৪ নং ধারায় পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এ সময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোসাম্মৎ রহিমা আক্তার 'স্বপ্ন' এক্সপ্রেস সুপার শপের ব্যবস্থাপক জানে আলমকে সতর্ক করেন এবং ভবিষ্যতে পচা মাছ বিক্রি থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেন। এ বিষয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোসাম্মৎ রহিমা আক্তার বলেন, ‘স্বপ্ন এক্সপ্রেস সুপার শপে প্রবেশ করার সঙ্গে সঙ্গে আমরা পচা মাছের গন্ধ পাই। পরবর্তীতে পর্যবেক্ষণ করে দেখি মাছগুলো পচে লাল হয়ে গেছে। কিছু কিছু মাছ গলে যাচ্ছিল। তাই সেই মাছগুলো আমরা ডাস্টবিনে ফেলে দেই এবং ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করি।’ তিনি আরো বলেন, ‘স্বপ্ন তাদের নিজেদের পণ্যে পাটজাত প্যাকেট ব্যবহার করেছে কিন্তু অন্যান্য কোম্পানির পণ্য মজুদ করেছে যেগুলোতে প্লাস্টিক ব্যাগ ব্যবহার করা হয়েছে। তাই তাদের সতর্ক করে দিয়ে মাত্র ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।’ অভিযানে আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা পাট অধিদপ্তরের চিফ ইন্সপেক্টর তারিকুল ইসলাম তালুকদার, ইন্সপেক্টর শাহ্জাহান হালদার, সহযোগী শিপলু ও পুলিশ সদস্যরা।

উদ্বোধনের মাত্র তিন মাসের মধ্যেই সুপার শপটিতে এ অনিয়ম পাওয়া যাওয়ায় ক্রেতা সাধারণের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। এখানকার খাদ্য সামগ্রীর মান নিয়েও প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।