বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি ১০ নভেম্বর, ২০২০ ০৫:১৮

পিসি কেনার সময় যে বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে

টেক ডেস্ক

বর্তমান সময়ে কম্পিউটার ছাড়া চিন্তা করা যায় না এক মুহূর্তও। শিক্ষা ক্ষেত্র থেকে শুরু করে ব্যবস্যা প্রতিষ্ঠান, অফিস-আদালত, বিনোদন পর্যন্ত প্রতিটি ক্ষেত্রেই এর ব্যবহার।

কম্পিউটার হিসেবে ডেস্কটপের চাহিদা সবচেয়ে বেশি। পিসি কেনার সময়ে কাজের ধরনের উপর ভিত্তি করে কিনতে হবে। এতে টাকার সাশ্রয়ের সাথে হয় পিসিটির পূর্ণ ব্যবহার।

অনলাইন ক্লাসের জন্য: এক্ষেত্রে স্বল্প বাজেটের একটি পিসিই যথেষ্ঠ। ৭ থেকে ১০ হাজার টাকার মধ্যে ডুয়েল কোর অথবা প্রথম জেনারেশনের কোর আই-৩ নির্বাচন করলেই ভালো হয়।

এ বাজেটের পিসিগুলো সবার সাধ্যের মধ্যে। তাছাড়া ৪ জিবি র‌্যাম, সাধারণ মাদারবোর্ড, গ্রাফিক্স বিল্ট-ইন, ডিভিডি রম থাকতে হবে। আর ক্লাসের জন্য একটু বড় মনিটর নিলে ভালো হয় যেমন ১৯ ইঞ্চি। ৫০০ জিবির সাধারণমানের হার্ড ডিস্ক ছাত্রদের জন্য যথেষ্ঠ।

গ্রাফিক্সের কাজ করার জন্য: সাধারণত গ্রাফিক্সের কাজগুলো করার জন্য অনেক ভারি সফটওয়্যারের প্রয়োজন হয়। তাই এক্ষেত্রে সর্বোনিম্ন ৩০ হাজার টাকার পিসির দরকার হবে। এই ধরনের পিসি গেমিং পিসি হিসেবেও পরিচিত। কোর আই-৭ এর লেটেস্ট জেনারেশনের প্রসেসর নির্বাচন করা উচিত।

১৬ জিবি র‌্যাম এবং ইন্টেল চিপের মাদারবোর্ড গ্রাফিক্স কাজের জন্য ভালো পারফরম্যান্স দিবে। আর স্টোরেজ হিসেবে এসএসডি এবং হার্ড ডিস্ক দুটোই নির্বাচন করা উচিত। এসএসডি অপারেটিং সিস্টেমকে অনেক দ্রুত গতিতে লোড করবে আর হার্ড ডিস্ক বিভিন্ন ফাইল স্টোরেজ হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। অবশ্যই আলাদা ভালো মানের ৪ জিবির গ্রাফিক্স কার্ড থাকতে হবে।

অফিসিয়াল কাজের জন্য: অফিসিয়াল কাজ করার জন্য পিসি কিনতে হলে সর্বনিম্ন ২০ হাজার টাকার পিসি যথেষ্ঠ। এক্ষেত্রে কোর আই-৫ এর যে কোন জেনারেশন দিয়ে অফিসের সব কাজ করা যাবে। সাথে ৮জিবি র‌্যাম এবং এসএসডি নির্বাচন করবেন। ডিভিডি ড্রাইভ থাকলে ভালো কারণ এতে বিভিন্ন ধরনের সফটওয়্যার সহজেই ইনস্টল করতে পারবেন।

তাছাড়া আপনার পছন্দ মতো কেসিং, মাউস, কী-বোর্ড ইত্যাদি নিতে পারেন তবে গেমিং বা ডিজাইনিং এর জন্য আলাদা ভালোমানের পাওয়ার ইউনিট কিনে নিবেন। আর প্রসেসর এবং গ্রাফিক্স কার্ডের জন্য আলাদা কুলারের দরকার হতে পারে।

পিসি এবং প্রয়োজনীয় জিনিসের দাম আপনি কেনার আগে অনলাইন থেকে দেখে নিতে হবে।