শিক্ষা ১২ ডিসেম্বর, ২০২০ ০৭:২৭

যে কারণে কুষ্টিয়ার পাঁচ শিক্ষককে জরিমানা করেলো আদালত

ডেস্ক রিপোর্ট

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে কুষ্টিয়ার মিরপুরে বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের ক্লাস নেওয়ার দায়ে পাঁচ জন শিক্ষককে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

শনিবার (১২ ডিসেম্বর) দুপুরে কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) লিংকন বিশ্বাসের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালতের একটি দল উপজেলার নিমতলা এলাকার নিমতলা দারুস সালাম অনলাইন মডেল স্কুলে অভিযান চালায়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিংকন বিশ্বাস জানান, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে শনিবার (১২ ডিসেম্বর) দুপুরে ওই বিদ্যালয়ে নিয়মিত পাঠদান করানো হয় বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। এসময় বিদ্যালয়ে গিয়ে তার সত্যতা পাওয়ায় বিদ্যালয়ের পাঁচ জন শিক্ষককে আটক করা হলে তারা সরকারি নির্দেশনা অমান্যের বিষয়টি স্বীকার করে।

পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে দণ্ডবিধি ১৮৬০ এর ২৬৯ ধারায় প্রত্যেককে পাঁচ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড দেওয়া হয়।

অর্থদণ্ডপ্রাপ্ত শিক্ষকরা হলেন- মিরপুর উপজেলার আমলা ইউনিয়নের নিমতলা গ্রামের আমিরুল ইসলামের ছেলে শুভ (২০), সোহাগ আলী (১৭), সদরপুর ইউনিয়নের সদরপুর গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে ফিরোজ মাহমুদ (৩০) ফরিদুজ্জামান (২০) আমলা ইউনিয়নের কচুবাড়ীয়া গ্রামের চাঁদ আলীর ছেলে রশিদ আহম্মেদ (২১)

জানা যায়, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভিডিও বার্তায় বিতর্কিত বক্তব্য দেওয়ায় নিমতলা দারুস সালাম অনলাইন মডেল স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক আমিরুল ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা হয়। পরে ২০ নভেম্বর তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এছাড়া ২৫ নভেম্বর কুষ্টিয়ার চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালতে (মিরপুর) হক্কানী দরবারের পরিচালক খালিদ হোসাইন সিপাহী বাদী হয়ে আরো একটি মামলা করেন আমিরুল ইসলামের বিরুদ্ধে।