বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি ৩০ জানুয়ারি, ২০২১ ১১:৫২

টেসলার স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিলো শাওমি

সাহেগীর জুয়েল

ফোনের চার্জিং এর সুবিধাকে আরো এক ধাপ এগিয়ে নিয়ে গেল শাওমি। ১৮৯০ দশকে বিশ্বব্যাপী তারবিহীন বৈদ্যুতিক শক্তি প্রেরণের চিন্তা করেছিলো বিশ্ববিখ্যাত বিজ্ঞানী নিকলো টেসলা। সেই সময়ে তিনি এই প্রযুক্তিকে বাস্তবে রূপ দিতে না পারলেও ১৩১ বছর পর টেসলার স্বপ্নটাকে খানিকটা হলেও সত্যি করে তুলল জনপ্রিয় টেক জায়েন্ট শাওমি।

‘মি এয়ার চার্জ’ নামের এই ডিভাইসে কোন প্রকার তার বা ডক চার্জার ব্যবহার না করেই ফোন চার্জ করা যাবে। কোন নিদিষ্ট রুমে ওই ডিভাইসটি রেখে দিলে, যখনই ব্যবহারকারী ওই রুমে প্রবেশ করবে তখন আপনাআপনি চার্জ নিতে শুরু করবে কানেক্ট করা ফোনটি । বাতাসে ‘ন্যারো মিলিমিটার ওয়াইড-অয়েভ বিম’ এর মাধ্যমে এটি কাজ করবে বলে জানানো হয় ওই ভিডিওতে।

গতকাল শুক্রবার ২৯ জানুয়ারি সকালে নিজেদের ভ্যারিফাইড ফেসবুক পেইজে এমনই এক গ্যাজেটের আভাস দিলো টেক জায়েন্টটি।

১৪৪ টি ক্ষুদ্র অ্যান্টিনার মাধ্যমে ডিভাইসটি বাতাসে ‘ন্যারো মিলিমিটার ওয়াইড-অয়েভ বিম’ ছেড়ে দিবে। যখন কোন মোবাইল এই ডিভাইসের নিদিষ্ট কাভারেজের আওতায় আসবে তখন অটোমেটিকভাবে চার্জ নিতে শুরু করবে। ৫ ওয়াটের এই ‘মি এয়ার চার্জার’ এক সাথে দুইটি ফোন চার্জ দিতে সক্ষম বলেও জানানো হয় ওই ভিডিওতে। কথা বলতে বলতে কিংবা গেইম খেলতে খেলতে দেওয়া যাবে চার্জ।

সাইন্স ফিকশনকে হার মানানো এই প্রযুক্তি টেক দুনিয়া আরো এক ধাপ এগিয়ে নিয়ে গিয়েছে বলে মনে করছেন  বিশ্বের প্রযুক্তিবিদরা।