বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০৩:৩২

ইউটিউবে আয় করে যেভাবে হবেন লাখোপতি!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক।।

ইউটিউব হচ্ছে এলফাবেটের অধীন গুগোলের একটি অনলাইন ফ্রি ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম, এখানে কন্টেন্ট ক্রিয়েটররা তাদের বিভিন্ন রকমের ভিডিও কন্টেন্ট পাবলিশ করে, এবং ভিজিটররা সেখানে গিয়ে সেগুলো ভিডিও কন্টেন্ট ফ্রিতে দেখতে পারে।

অনলাইনে ইউটিউব একই সাথে বিনোদন ও জ্ঞানের ভান্ডার হিসেবে প্রতিষ্ঠা পেয়েছে। প্রচুর পরিমাণ ভিডিও কন্টেন্ট প্রতিদিন আপলোড হচ্ছে ইউটিউবে, অনেক শিক্ষামূলক ভিডিও, বিনোদন, খেলাধুলা, সঙ্গীত, কোর্স, টিউটোরিয়াল ফ্রিতেই এখন সবাই পেয়ে যায় ইউটিউবে।

ফ্রি হওয়ার কারনে ইউজারের সাথে সাথে ইউটিউবারদেরও সংখ্যা বাড়ছে। আর সেই জন্যই গুগল বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে অংশীদারী ভিত্তিতে ইউটিউবারদেরও আয়ের সুযোগ করে দেয়। ইউটিউবিং করে মিলিয়ন ডলার রোজগার করা লোকজনও একেবারে কম নয়। বাংলাদেশীদের মাঝেও এখন ইউটিউব ঝড় চলছে। গুগল এরই মধ্যে জানিয়েছে তারা বাংলাদেশেও আঞ্চলিক কার্যালয় প্রতিষ্ঠা করবে।

আপনিও যদি বিখ্যাত ইউটিউবারদের মত আয় করতে চান। বা নিজের দৈনন্দিন কাজের পাশাপাশি আয়ের দ্বিতীয় কোন উৎস সৃষ্টি করতে চান। আর আপনার যদি কোন কাজে সৃজনশীল দক্ষতা থাকে। তবে আপনারও উচিত ইউটিউবের বর্নীল জগতে বিচরন ।

আপনার একটি গুগল অর্থাৎ জিমেইল একাউন্ট থাকতে হবে ইউটিউবে চ্যানেল খুলে ফেলার জন্য। ওই জিমেইল দিয়েই ইউটিউব ব্যবহার করতে পারবেন।আপনার প্রতিভা অনুযায়ী সুন্দর একটি চ্যানেল খুলবেন।আপনার প্রতিভা কিংবা প্যাশন কে কাজে লাগিয়ে মানুষের জন্য কন্টেন্ট তৈরি করবেন যেগুলা মানুষ পেলে উপকৃত হবে কিংবা বিনোদিত হবে,তারপর আপনার সেই চ্যানেলে আপনার ভিডিও আপলোড করবেন, ইউটিউবের রিকোয়ারমেন্ট ফুল হওয়ার পর আপনি আপনার চ্যালেন মনিটাইজ করতে পারবেন আডসেন্স থেকে তাহলে সেই ভিডিও তে বিজ্ঞাপণ আসবে, ভিজিটররা আপনার ভিডিও দেখার সময় তাদের ডিভাইসে অ্যাড দেখাবে আর আপনি আয় করবেন যা খুবই সহজ এবং এগুলা নিয়ে ইউটিউবে অনেক অনেক ভিডিও আছে দেখে নিতে পারেন সার্চ করে।