অপরাধ ও দুর্নীতি ৩ মে, ২০২৩ ০৫:১৯

স্কুলছাত্রী মুক্তি বর্মণকে কুপিয়ে হত্যা, তরুণ আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক : নেত্রকোণার বারহাট্টায় স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে দশম শ্রেণির ছাত্রী মুক্তি বর্মণকে (১৬) কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় অভিযুক্ত কাউছার মিয়াকে (১৯) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার, ৩ মে বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে নেত্রকোণার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. হারুন অর রশিদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, এলাকার একটি জঙ্গল থেকে হত্যাকারী কাউছারকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় প্রেস ব্রিফিং করে বিস্তারিত জানানো হবে। গ্রেপ্তার কাউছার বারহাট্টা উপজেলার বাউসী ইউনিয়নের প্রেমনগর গ্রামের সামছু মিয়ার ছেলে।

গত মঙ্গলবার, ২ মে বিকেলে স্কুল থেকে সহপাঠীদের সঙ্গে বাড়ি ফেরার পথে স্থানীয় ছালিপুরা এলাকায় স্কুলছাত্রী মুক্তিকে দা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে কাউছার। পরে তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পুলিশ ও পরিবারসূত্রে জানা গেছে, মুক্তি বর্মণকে বিদ্যালয়ে যাওয়া-আসার পথে দীর্ঘদিন ধরে উত্ত্যক্ত করে আসছিল একই গ্রামের সামছু মিয়ার ছেলে কাউছার মিয়া। বিষয়টি তার পরিবারকেও জানানো হয়েছিল। এ অবস্থায় মঙ্গলবার বিদ্যালয় থেকে ফেরার পথে মুক্তির পথরোধ করে তাকে দা দিয়ে কুপিয়ে আহত করে কাউছার। পরে তাকে উদ্ধার করে বারহাট্টা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে চিকিৎসকরা নেত্রকোণা আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন। পরে সেখান থেকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর তার মৃত্যু হয়।

স্কুলছাত্রী মুক্তি বর্মণকে নৃশংসভাবে হত্যার বিচারের দাবিতে আজ বুধবার দুপুরে বারহাট্টায় মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। বাংলাদেশ নারী প্রগতি সংঘ, ইয়ুথ গ্রুপ, কমিউনিটি ফোরাম ও সর্বস্তরের নাগরিক সমাজ এ মানববন্ধন ও কর্মসূচির আয়োজন করে।

আমাদেরকাগজ / এইচকে