আন্তর্জাতিক ১২ মে, ২০২৩ ০২:১৫

গ্রেফতারের সময় আমাকে লাঠি দিয়ে মারধর করা হয়: ইমরান খান

ছবি - সংগৃহীত

ছবি - সংগৃহীত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: গত দুইদিন ধরে উত্তাল পাকিস্তান। এদিকে সাবেক প্রেসিডেন্ট ইমরান খানের গ্রেফতারের দুদিন পর বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের সুপ্রিমকোর্ট এই পদক্ষেপকে অবৈধ বলে ঘোষণা করে। ইসলামাবাদে হাইকোর্টের বাইরে থেকে ইমরানকে আটক করার জেরে সারা দেশে সহিংস বিক্ষোভের জন্ম দেয়। এর আগে, আদালত প্রাঙ্গণ থেকে তাকে গ্রেফতারের অভিযোগ ওঠে এবং যা বেআইনি বলে আখ্যায়িত করেন দেশটির প্রধান বিচারপতি। 

গ্রেফতারের পর পাকিস্তানি মিডিয়া রিপোর্টে বলা হয়, আদালতে খান বলেছিলেন যে, তাকে গ্রেফতার করার সময় লাঠি দিয়ে মারধর করা হয়েছিল এবং তাকে বেশ কিছু জায়গায় নিয়ে যাওয়া হয়েছিল; কিন্তু কেন তার কোনো ধারণা ছিল না। তার বিরুদ্ধে জারি করা গ্রেফতারি পরোয়ানাও দেখার দাবি জানান ইমরান।

প্রধান বিচারপতি খানকে সহিংস বিক্ষোভের নিন্দা করতে এবং তার সমর্থক ও দলীয় কর্মীদের শান্ত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানা গেছে। পিটিআইপ্রধান তার সমর্থকদের শান্তিপূর্ণভাবে তাদের বিক্ষোভ চালিয়ে যেতে এবং কোনো সম্পত্তির ক্ষতি না করতে বলেছেন। খান মুক্তি পেলেও তাকে ইসলামাবাদ হাইকোর্টে হাজিরা দিতে হবে। সূত্র: খালিজ টাইমস

এদিকে কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে ইসলামাবাদ হাইকোর্টে (আইএইচসি) হাজির করা হয়েছে পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে। খবর: ডন অনলাইন’র। 

আল-কাদির ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় শুক্রবার দুপুরে ইমরান খানকে আদালতে নেওয়া হয়।

আমাদের কাগজ/এমটি