আন্তর্জাতিক ১২ জুলাই, ২০২৩ ১১:২৮

পশ্চিমবঙ্গের পঞ্চায়েত নির্বাচনে তৃণমূলের বড় জয়

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের পঞ্চায়েত নির্বাচনের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের জনপ্রিয়তা প্রতিফলিত হয়েছে, গ্রামীণ স্থানীয় সরকারের তিনটি স্তরের সবগুলোতেই বড় ধরনের জয় পেয়েছে তারা।

তৃণমূল কংগ্রেস গ্রাম পঞ্চায়েতের মোট ৬৩২২৯ আসনের মধ্যে ৪২১২২টিতে, পঞ্চায়েত সমিতির ৯৭৩০ আসনের মধ্যে ৫২৬৩টিতে এবং জেলা পরিষদের ৯২৮ আসনের মধ্যে ৫২৬টিতে জয় পেয়েছে।   

রাজ্যের প্রধান বিরোধীদল বিজেপি অনেকটা পেছনে থেকে দ্বিতীয় স্থান পেয়েছে। তারা গ্রাম পঞ্চায়েতে ৯৩০৭টিতে, পঞ্চায়েত সমিতিতে ৫৭২টিতে এবং জেলা পরিষদের ১৫টি আসনে জয় পেয়েছে।

কিছু ফলাফল এখনও ঘোষণার অপেক্ষায় আছে।


এক ফেইসবুক পোস্টে পশ্চিমবঙ্গের তৃণমূল দলীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, “গ্রাম বাংলায় তৃণমূলের জয়জয়কার। তৃণমূলের প্রতি জনগণের ভালোবাসা, আবেগ ও সমর্থনের জন্য তাদের ধন্যবাদ জানাতে চাই। এই রাজ্যের জনগণের হৃদয়ে শুধু তৃণমূল, এ নির্বাচন তা প্রমাণ করেছে।”

মঙ্গলবার সকাল থেকে পশ্চিমবঙ্গের পঞ্চায়েত নির্বাচনের ভোট গণনা শুরু হয়। এ নির্বাচনে গ্রামীণ স্থানীয় সরকারের তিনটি স্তরের ৭৪ হাজারেরও বেশি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়।

সোমবার নির্বাচনে ভোট গ্রহণের সময় বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে ব্যাপক সহিংসতার ঘটনা ঘটে, এতে অন্তত ১৫ জন নিহত হন। গোলোযোগ ও বিভিন্ন অভিযোগের কারণে ৬৯৬টি কেন্দ্রে ফের ভোট গ্রহণ করা হয়। 

সোমবার সকালে মুর্শিদাবাদে একটি ভোট গণনা কেন্দ্রের কাছে বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। হাওড়ায় কেন্দ্রের কাছে জড়ো হওয়া জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ লাঠিপেটা করে।


গণনা কেন্দ্রগুলোতে বিরোধীদলীয় পরিদর্শকদের প্রবেশে বাধা দিয়ে ক্ষমতাসীন তৃণমূল ‘ভোট লুট করার বেপরোয়া চেষ্টা’ চালিয়েছে বলে অভিযোগ করেছে বিরোধীদল বিজেপি।

অপরদিকে তৃণমূল দাবি করেছে, নির্বাচন চলাকালে সহিংসতায় যারা নিহত হয়েছেন তাদের ৬০ শতাংশ হয় তাদের কর্মী বা তাদের সমর্থক।

এসব সত্ত্বেও দল জয় পাওয়ায় কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তৃণমূল নেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, “বিরোধীদের ‘মমতাকে ভোট নয়’কে ‘মমতার জন্য ভোট’ প্রচারণায় পরিণত করায় জনগণের কাছে (আমরা) কৃতজ্ঞ।” 

 

আমাদের কাগজ/টিআর