আন্তর্জাতিক ১৪ জুলাই, ২০২৩ ০২:৩৯

স্মরণকালের সবচেয়ে বড় বন্যা

ভয়াবহ পরিস্থিতি দিল্লিতে, সেনাবাহিনীর সহায়তা চাইলেন মুখ্যমন্ত্রী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: স্মরণকালের সবচেয়ে বড় বন্যায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লি। অতিবৃষ্টির পর যমুনা নদীর পানি বেড়ে তা শহরে ঢুকে পড়ে। আর এ বন্যার পানিতে ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে দিল্লিতে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, শুক্রবার (১৪ জুলাই) দিল্লির সবচেয়ে ব্যস্ততম সড়ক বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে। ইন্দ্রপ্রস্থ মেট্রো স্টেশনের কাছে একটি ড্রেন ব্যবস্থা ভেঙে যাওয়ার পর গুরুত্বপূর্ণ সড়কটিতে পানি ঢুকে পড়ে।

আর এই ড্রেন ব্যবস্থা ভেঙে যাওয়ার পর দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল সেনাবাহিনী ও জাতীয় দুর্যোগ প্রশমন বাহিনীর সহায়তা চেয়েছেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার যমুনা নদীর পানির পানি রেকর্ড পরিমাণ বৃদ্ধি পায়। এরপর আবার ধীরে ধীরে তা কমা শুরু করে। তা সত্ত্বেও এখনো পানির নিচে রয়ে গেছে দিল্লির অনেক অঞ্চল। সেখানকার স্থানীয় সরকার স্কুল, কলেজ, শ্মশান; এমনকি পানি শোধনাগারও বন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে।

আইটিও ও রাজঘাটের অনেক এলাকা এখনো পানির নিচে রয়েছে। এছাড়া রাজধানীর প্রাণকেন্দ্র তিলক মার্গ এলাকায় অবস্থিত সুপ্রিম কোর্টের আঙ্গিনায় বন্যার পানি ঢুকেছে। আইটিওতে সরকারি অনেক অফিস ও পুলিশের সদর দপ্তর অবস্থিত।

দিল্লির সরকার জানিয়েছে, বন্যার কারণে সুপেয় পানির অভাব দেখা দিতে পারে। এছাড়া কিছু কিছু জায়গায় লোডশেডিংও হতে পারে।

দিল্লি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগ বৃহস্পতিবার রাজধানীতে ভারী ট্রাক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। এ নিষেধাজ্ঞার কারণে প্রয়োজনীয় পণ্যবাহী ট্রাকও প্রবেশ করতে পারছে না।

বার্তাসংস্থা এএনআইয়ের প্রকাশিত ছবিতে দেখা গেছে, শহরের আইকনিক লালকেল্লার সামনের এলাকা বন্যার পানির নিচে রয়েছে। কয়েক জায়গায় ভেঙে পড়া ও পরিত্যাক্ত ট্রাক দাঁড়িয়ে আছে। এসব ট্রাকের শুধুমাত্র ছাদ দেখা যাচ্ছে।

সূত্র: এনডিটিভি