সারাদেশ ৩০ জুলাই, ২০২৩ ০১:১২

ঘরে আগুন লেগে দেবর ভাবীর মৃত্যু

ছবি - সংগৃহীত

ছবি - সংগৃহীত

আমাদের কাগজ ডেস্ক: মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ে আগুন লেগে দেবর ভাবীর মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। এর আগে, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে ঘরে আগুন লাগে বলে জানা যায়। জানা যায়, উপজেলার বৌলতলী ইউনিয়নের কাজিপাড়া গ্রামে রোববার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে এ আগুন লাগার ঘটনা ঘটে।

প্রাণ হারানো দুজন হলেন ২৬ বছর বয়সী ইমরান হোসেন ও ২৩ বছর বয়সী নাসরিন আক্তার। সম্পর্কে তারা দেবর ও ভাবী।

নাসরিনের বাবা নূর ইসলাম খান বলেন, ‘আমার মেয়ে, জামাতা শুভ ও দেবর ইমরান বেশকিছু দিন আগে বেড়াতে আসে। রোববার সকালে জামাতা শুভ তার ব্যবসার কাজে ঢাকায় চলে যায়। মেয়ে ও তার দেবর বাসায় ছিল। হঠাৎ সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ঘরে আগুন লেগে যায়। আমরা প্রাথমিকভাবে পানি দিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে না পেরে ফায়ার সার্ভিসকে কল করে জানাই। ফায়ার সার্ভিস আসার আগেই ঘরসহ আমার মেয়ে ও তার দেবর আগুনে পুড়ে মারা যায়।’

মুন্সীগঞ্জ লৌহজং উপজেলা ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন অফিসার আব্দুল মতিন বলেন, ‘খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনি। তবে বিচ্ছিন্ন এলাকায় রাস্তা না থাকায় নৌকায় ঘটনাস্থলে পৌঁছাতে দেরি হয়েছে। প্রায় ৩০ মিনিটের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। এ সময় দুটি ঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘আগুন নিয়ন্ত্রণ করে সেখান থেকে দুইজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে একজন নারী অন্যজন পুরুষ।’

মুন্সীগঞ্জ লৌহজং উপজেলা ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন অফিসার আব্দুল মতিন জানান, বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে ঘরে আগুন লেগেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে উপজেলার নিবার্হী কর্মকর্তা (ইউএনও) ড. মো. আব্দুল আউয়াল বলেন, ‘আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ওই পরিবারকে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষে থেকে ২৫ হাজার টাকা করে ৫০ হাজার টাকা আর্থিক সহযোগিতা করা হয়েছে। সেই সঙ্গে পুড়ে যাওয়া ঘর পুনর্বাসনের জন্য আর্থিকভাবে সহযোগিতা করা হবে।’

আমাদেরকাগজ/এমটি