সারাদেশ ১ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ ১১:০৩

মাদক সেবনে বাধা দেওয়ায় ছুরিকাঘাতে ইউপি সদস্যকে হত্যা

ছবি - সংগৃহীত

ছবি - সংগৃহীত

কুমিল্লা প্রতিনিধি : কুমিল্লার লাকসাম উপজেলায় ‘মাদক সেবনে বাধা দেওয়ায়’ এক ইউপি সদস্যকে ছুরিকাঘাতে ঘটনা ঘটেছে। এ সময় অভিযুক্ত রাজিব হোসেন (৩২) পালিয়ে যায় বলে জানা গেছে । গতকাল( বৃহস্পতিবার ) বিকালে উপজেলার শ্রীয়াং বাজারে এ ঘটনা ঘটে বলে লাকসাম থানার ওসি আবদুল্লাহ আল মাহফুজ জানান। এর আগে, এই হত্যার হত্যার অভিযোগ উঠে।

নিহত মো. আবুল কাশেম (৫২) মুদাফ্ফরগঞ্জ দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ছিলেন।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিকালে ইউপি সদস্য কাশেম মাদক সেবন না করার কথা বলতে শ্রীয়াং গ্রামের দক্ষিণ পাড়ার প্রয়াত শহীদুল্লাহর ছেলে রাজিব শ্রীয়াং বাজারে তার কার্যালয়ে যেতে বলেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন রাজিব।

স্থানীয়দের বরাতে ওসি মাহফুজ বলেন, বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে শ্রীয়াং বাজারের দক্ষিণ গলিতে কাশেমের সঙ্গে দেখা হয় রাজিবের। এ সময় তাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে রাজিব তার সঙ্গে থাকা ছুরি দিয়ে কাশেমের বুকে আঘাত করেন।

এ সময় পাশ থেকে কাশেমের ফুফাতো ভাই মীর হোসেন ঘটনাস্থলে গিয়ে রাজিবকে জাপটে ধরেন। তবে রাজিব তার চোখে মরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে পালিয়ে যান। তাৎক্ষণিকভাবে স্থানীয়রা কাশেমকে লাকসাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন বলে জানায় পুলিশ।

স্থানীয়দের অভিযোগ, গত বছর দেশে ফেরার পর থেকে মাদকাসক্ত হয়ে পড়েন রাজীব। এ ছাড়া তিনি এলাকায় বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের সঙ্গেও জড়িত।

ওসি মাহফুজ আরও বলেন, আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। ঘটনার তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। হত্যায় জড়িত যুবককে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

আমাদেরকাগজ/এমটি