আন্তর্জাতিক ২ ডিসেম্বর, ২০২৩ ০৩:০৪

বন্দুক দেখিয়ে সরকারি চাকরিজীবীকে তুলে আনান মেয়ের বাবা,অতঃপর...

আমাদের কাগজ ডেস্ক: জোর করে এক সরকারি চাকরিজীবীকে নিজ কর্মস্থল থেকে তুলে নিলেন এক অপহরণকারী। পরে তুলে নিয়ে মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে নিজের মেয়ের সঙ্গে বিয়ে দেন ওই অপহরণকারী। ঘটনাটি গত বুধবারের। শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) ভারতের বিহারের রেপুরা জেলায় এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানায় দেশটির গণমাধ্যম।

সরকারি কর্মকমিশনের পরীক্ষায় পাস করে শিক্ষক হিসেবে মাত্র যোগদান করেছেন গৌতম কুমার। প্রতি দিনের মতো স্কুলে ক্লাস নিচ্ছেলেন তিনি। এ সময় হঠাৎ করে কয়েকজন ব্যক্তি জোর করে ক্লাসের মধ্যে ঢুকে পড়েন। পরে গৌতমকে তুলে নিয়ে যায় ও একপর্যায় জোর পূর্বক বাধ্য করেন বিয়ে করতে। 

খবরে বলা হয়, গৌতম কুমার নামে এক শিক্ষক গত বুধবার পাতেপুরের রেপুরার একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে অপহরণ করা হয় তাকে। এরপর সোজা পাঠিয়ে দেওয়া হয় অপহরণকারী রাজেশ রাইয়ের বাড়িতে।

প্রথমে গৌতম বিয়ে করতে রাজি না হওয়ায় তাকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করা হয়। পরে তার দিকে বন্দুক তাক করে তাকে বিয়ে করতে বাধ্য করা হয়। এরপর প্রাণের ভয়ে রাজেশের মেয়ে চাঁদনিকে বিয়ে করতে বাধ্য হন গৌতম।

গৌতমকে অপহরণের ঘটনায় থানায় খবর দেন স্কুলটির প্রধান শিক্ষক। পরে গৌতমের ফোন ট্র্যাক করে তার খোঁজ পাওয়া যায়। পুলিশ গৌতমকে উদ্ধার করে। তবে ততক্ষণে বিয়ের সব নিয়ম সম্পন্ন হয়েছে। 

এর আগেও বিহারে অবিবাহিত ভালো চাকরি পাওয়া যুবকদের অপহরণ করে অস্ত্রের মুখে বিয়ে করতে বাধ্য করার ঘটনা ঘটেছে।

সূত্র : এনডিটিভি